২০১৯- ব্যস্তময় এক বছর সাকিব-মুশিদের

0
222

২০১৯ সালটা বেশ ব্যস্ততায় কাটবে টাইগারদের। বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে আন্তর্জাতিক কোনো ম্যাচ না থাকলেও ফেব্রুয়ারি থেকেই বাইজ গজের লড়াইয়ে ব্যস্ত থাকবে বাংলাদেশ। পাঁচ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসর। আর এ কারণেই আন্তর্জাতিক কোনো ম্যাচ থাকছে না টাইগারদের। বিপিএল চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এরপরই শুরু হবে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

ফিউচার ট্যুর প্ল্যান বা এফটিপি অনুসারে নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে বছর শুরু করবে বাংলাদেশ। ফেব্রুয়ারির ১৩ তারিখ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত ব্ল্যাক ক্যাপদের বিরুদ্ধে তিনটি করে ওয়ানডে ও টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

নিউজিল্যান্ড সফর শেষে আয়ারল্যান্ড পাড়ি জমাবে বাংলাদেশ। সেখানে টাইগাররা একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে। স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড ও বাংলাদেশ ছাড়াও টুর্নামেন্টে অংশ নেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগামী পাঁচ মে শুরু হবে টুর্নামেন্টটি। ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ১৭ মে। এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ গ্রুপ পর্যায়ে খেলবে চারটি ম্যাচ। ফাইনালে পৌঁছাতে পারলে ম্যাচের সংখ্যা আরেকটি বাড়বে।

এই টুর্নামেন্ট দিয়েই আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি। আয়ারল্যান্ড থেকে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমাবে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। শুরু হবে বিশ্বকাপের মিশন গ্রুপপর্বে ৯টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে বিশ্বকাপ শুরু হবে ৩০ মে, শেষ হবে ১৪ জুলাই।

বিশ্বকাপের পর লম্বা বিশ্রাম পাবে বাংলাদেশ দল। অক্টোবরের আগে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ নেই দলটির। অক্টোবরে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়া দলের। সূচি এখনও চূড়ান্ত না হলেও এই সিরিজে দুই দলের তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অংশ নেওয়ার কথা।

অক্টোবরের মাঝামাঝিতে বাংলাদেশে এসে আফগানিস্তান একটি টেস্ট ও দু’টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে। আফগানিস্তান সিরিজ শেষে নভেম্বরে ভারত সফরে যাবে সাকিব আল হাসানের দল। ৪ থেকে ২৯ নভেম্বরের মধ্যে বিরাট কোহলিদের বিপক্ষে দু’টি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ২০১৯ সালটা শেষ করবে শ্রীলঙ্কা সফর দিয়ে। এফটিপি অনুযায়ী দুই থেকে ১৩ ডিসেম্বরের মধ্যে লঙ্কানদের বিপক্ষে একটি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here