মোহামেডানের সঙ্গে ড্র করে শেষ আটে শেখ জামাল

0
444

মোহামেডানের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে ওয়ালটন ফেডারেশন কাপের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। মঙ্গলবার (আজ) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে পিছিয়ে পড়েও এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে শেখ জামাল। এই ড্রয়ে ডি গ্রুপের রানার্সআপ হিসেবেই নকআউট পর্বে উঠে এল ধানমন্ডির দলটি। এই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে বসুন্ধরা গ্রুপের দল বসুন্ধরা কিংস। আর ঐতিহ্যবাহী দল মোহামেডানকে এবার গ্রুপ পর্ব খেলেই বিদায় নিতে হলো।

এক পয়েন্ট পেলেই নিশ্চিত নকআউট পর্ব। লক্ষ্যটা জানা ছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের ফুটবলারদের। তবে ম্যাচটা জিততে পারলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার সুযোগ পাবে তারা। প্রতিপক্ষ হিসেবে তুলনামূলক সহজ দল পাওয়া যাবে। কিন্তু জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল না যোসেফ আফুসির শিষ্যরা। ম্যাচের ৩৪তম মিনিটেই পিছিয়ে পরে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। ফ্রি কিক থেকে ড্রপ শটে দারুণ এক গোল করেন মোহামেডানের গাম্বিয়ান ফুটবলার ল্যান্ডিং। এগিয়ে যাওয়ার পর মোহামেডানের খেলায় যেন ছন্দ ফিরে আসে। তবে শেখ জামালের কৌশলের কাছে শেষ পর্যন্ত পরাস্ত হয় ঐতিহ্যবাহী দল মোহামেডান। প্রথমার্ধে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় সাদা-কালোরা। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে সমতায় ফিরতে দেরি করেনি শেখ জামাল। ম্যাচের ৪৮তম মিনিটে ডিফেন্ডারদের ভুলে গোল হজম করে মোহামেডান। শেখ জামালের গাম্বিয়ান ফুটবলার সলোমন কিংয়ের বাড়ানো বল ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হয় মোহামেডানের ডিফেন্স লাইন। সুযোগমতো বল পেয়ে তা কাজে লাগান আর্জেন্টিনার লুসিয়ানো এমানুয়েল। ম্যাচের বাকি সময় দুই দলই গোলের জন্য চেষ্টা করলেও আর কোন গোল হয়নি।

শেখ জামাল-মোহামেডানের বল দখলের লড়াই। ছবি: সংগৃহীত

এই ড্রয়ে ৩ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় গ্রুপের রানার্সআপ হিসেবেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। শেষ আটে হলুদ জার্সিধারীরা মুখোমুখি হবে বি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের। কোয়ার্টার ফাইনালের খেলা শুরু হবে আগামীকাল থেকে। প্রথমদিনেই মুখোমুখি হচ্ছে ঢাকা আবাহনী ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। পরের কোয়ার্টার ফাইনালে যথাক্রমে মুখোমুখি হবে শেখ জামাল-সাইফ, শেখ রাসেল-চট্টগ্রাম আবাহনী এবং বসুন্ধরা কিংস-বিজেএমসি।

গ্রুপ পর্বের লড়াই শেষ। এবার নকআউটের লড়াই। কোয়ার্টার ফাইনালের পর আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য ফিফার উইন্ডো আছে। বেশ কয়েকদিন বিরতি থাকবে টুর্নামেন্টে। ২১ নভেম্বর থেকে শুরু হবে সেমিফাইনাল। ফাইনাল হবে ২৪ নভেম্বর।

কোয়ার্টার ফাইনালের সূচী
আবাহনী-আরামবাগ, ৮ নভেম্বর, বিকাল ৫টা
শেখ জামাল-সাইফ স্পোটিং, ৯ নভেম্বর, বিকাল ৫টা
শেখ রাসেল-চট্টগ্রাম আবাহনী, ১০ নভেম্বর, বিকাল ৫টা
বসুন্ধরা কিংস-টিম বিজেএমসি, ১১ নভেম্বর, বিকাল ৫টা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here