সঠিক হিসাব অনুযায়ী ২৩ ডিসেম্বর ২০০৭ তারিখে নু-ক্যাম্পে অনুষ্ঠিত ‘এল ক্লাসিকোটিই ছিল সর্বশেষ মেসি-রোনালদো বিহীন এল-ক্লাসিকো। রোনালদো তখন ছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আর মেসি সে ম্যাচটি চোটের জন্য খেলতে পারেননি। এবার ঠিক প্রায় ১১ বছর পরে আরো একটি এল ক্লাসিকো হতে যাচ্ছে মেসি-রোনালদোকে ছাড়া।

অক্টোবরের ২৮ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে থাকছেননা এই দুই মহাতারকার কেউই। রাশিয়া বিশ্বকাপের পর গেলো জুলাইয়ে ট্রান্সফার উইন্ডো চলাকালীন সময়ে রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তখন থেকেই ফুটবল প্রেমীরা অনেকবছর পর রোনালদো বিহীন এল-ক্লাসিকো দেখার জন্য প্রস্তুত থাকলেও এবার সেই সাথে যোগ হলো মেসির না থাকা।

.গত পরশু দিন নু-ক্যাম্পে সেভিয়ার সঙ্গে ম্যাচে মাত্র ১৪ মিনিটের মাথায় ভাজকেজের সাথে বল দখলের লড়াইয়ের সময় হাতের ইনজুরিতে পড়েন এই বার্সাতারকা। মাঠেই পড়ে ছিলেন খানিকক্ষণ পরে হাত ব্যান্ডেজ করে মাঠ ছাড়েন। ম্যাচটি বার্সেলোনা ৪-২ গোলের ব্যাবধানে জিতলেও ম্যাচশেষে আসে খারাপ খবর। ডাক্তারি পরিক্ষার পর জানা যায় যে মেসির ডান হাতের কব্জির উপর হাড়ে চির ধরেছে। ডাক্তার আরো জানায় এ ধরনের চোটের কারনে অন্তত তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে মেসিকে। এতে করে নিশ্চিত চ্যাম্পিয়নস-লীগে বুধবার ইন্টার মিলানের সাথে ম্যাচ মিস করছেন এমনকি প্রায় নিশ্চিত ফিরতি নভেম্বরের ৬ তারিখের ম্যাচও মিস করা। তবে বার্সেলোনা তাকে সবথেকে বেশি মিস করবে ২৮ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে।

এল ক্লাসিকোতে মেসির না থাকা প্রসঙ্গে বার্সা কোচ ভালভার্দে বলেন–—,’আমরা সবাই জানি মেসি আমাদের কী দিতে পারে এবং বিপক্ষ দলকে নিয়ে সে কী খেলা খেলে। তবে খেলোয়াড়দের চাঙ্গা রাখতেই আবার বললেন, আমাদের নিজেদের তৈরি করতে হবে। এটা ঠিক যে মেসির অভাববোধ করব আমরা। কিন্তু এটা পুষিয়ে নেওয়ার মতো খেলোয়াড় আছে আমাদের।’ এখন দেখার বিষয় প্রায় ১১ বছর পর হতে যাওয়া মেসি-রোনালদো বিহীন প্রথম এল -ক্লাসিকো ফুটবল মাঠ এবং ফুটবল প্রেমীদের মনে কতটা উত্তাপ ছড়ায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here