ব্যালন ডি’অর জিতলেন মডরিচই, রোনালদো দ্বিতীয় মেসি পঞ্চম

0
212

ফিফার বর্ষসেরা হওয়ার পর ব্যালন ডি’অরেও যে মেসি-রোনালদোর আধিপত্য শেষ করবেন ক্রোয়েশিয়ার লুকা মডরিচ এটা অনেকটা নিশ্চিতই ছিল। মাঝখানে তো গুজবও রটেছিল। অবশেষে সেই গুজবটাই সত্য প্রমাণ হলো। সোমবার প্যারিসের স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আলো ঝলমলে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলা লুকা মডরিচের হাতে তুলে দেওয়া হলো ৬৩তম ব্যালন ডি’অর ট্রফি। বিশ্বজুড়ে সাংবাদিকদের ভোটে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও অাঁতোয়ান গ্রিজমানকে পেছনে ফেলে ফরাসি সাময়িকী ‘ফ্রান্স ফুটবল’ –এর দেওয়া পুরস্কারটি জিতলেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। শেষ হলো মেসি-রোনালদোর এক দশকের আধিপত্য।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর স্থান মোটামুটি ঠিকই আছে। তিনি দ্বিতীয় হয়েছেন। কিন্তু লিওনেল মেসি এক ধাক্কায় নেমে গেলেন পঞ্চমে! মাত্র ২৮০টি ভোট পেয়েছেন মেসি। অন্যদিকে লুকা মডরিচ ৭৫৩ এবং রোনালদো ৪৭৮ ভোট পেয়েছেন। তৃতীয় হওয়া আঁতোয়ান গ্রিজমান পেয়েছেন ৪১৪ ভোট। মেসিকে টপকে চতুর্থ হয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি তরুণ কিলিয়ান এমবাপ্পে। ১০ বছর পর মেসি ও রোনালদোর বাইরে অন্য কেউ পুরস্কারটি জিতল। গত এক দশকে পাঁচবার করে ব্যালন ডি’অর জেতেন দুই তারকা। এ বছর বর্ষসেরার সবকটি পুরস্কারই ঘরে তুললেন মডরিচ। গত অগাস্টে রোনালদো ও মোহাম্মদ সালাহকে হারিয়ে উয়েফার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হন তিনি। পরের মাসে এই দুজনকে পিছনে ফেলেই ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ নির্বাচিত হন ৩৩ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। তাই তার ব্যালন ডি’অর জেতাটা একরকম প্রত্যাশিতই ছিল।

গত মৌসুমে ইতিহাসের প্রথম ক্লাব হিসেবে রিয়ালের টানা তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল মডরিচের। মাদ্রিদের ক্লাবটির হয়ে গত মৌসুমে উয়েফা সুপার কাপ, স্প্যানিশ সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপাও জেতেন তিনি। আর রাশিয়া বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে তুলতে বড় অবদান রাখেন মডরিচ। টুর্নামেন্ট জুড়ে ধারাবাহিকভাবে দারুণ খেলেন তিনি, দুটি গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে করান ১টি। জেতেন আসরের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার ‘গোল্ডেন বল’। ফিফার বর্ষসেরা ও ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর ব্যালন ডি’অর পুরস্কার শুরুতে আলাদাভাবে দেওয়া হতো। পরে ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ছয় বছর দুটি পুরস্কার একীভূত করে দেওয়া হয়। তবে ২০১৬ সাল থেকে আবার আলাদাভাবে দেওয়া হচ্ছে পুরস্কার দুটি।

এবারই প্রথমবারের মতো দেওয়া নারী ফুটবলের ব্যালন ডি’অর জিতেছেন অলিম্পিক লিওঁর নরওয়ের ফরোয়ার্ড আডা হেগেরবার্গ। আর সেরা অনূর্ধ্ব-২১ ফুটবলারের পুরস্কার ‘কোপা অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন পিএসজির ফরাসি ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here