বোথামকে টপকিয়ে অনন্য উচ্চতায় সাকিব

0
185

মাহমুদুল হাসান মিল্টন, ক্রীড়া প্রতিবেদকঃ  কিছুদিন আগে ওয়েষ্ট  ইন্ডিজে টেষ্ট সিরিজে হারা বাংলাদেশ এবার নিজেদের মাটিতে ক্যারিবিয়ানদের হারিয়ে যেনো মধুর প্রতিশোধই নিলো।

নিজেদের স্পিন শক্তিকে কাজে লাগিয়ে ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের নাকানিচুবানি খাইয়েছেন তাইজুল -নাইম-সাকিব-মিরাজ কে নিয়ে গড়া বিশ্বের অন্যতম ভয়ংকর স্পিন অ্যাটাক।

একাদশে চার স্পিনার দেখে আন্দাজ করতে কষ্ট হয়নি সাগড়পাড়ের উইকেটে স্পিনারদের আধিপত্য থাকবে।

মহাগুরুত্বপূর্ণ টস জয়ের পর মুমিনুল হকের সৌরভ ছড়ানো ব্যাটিংয়ের উপর ভর করে ৩২৪ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

ওয়েষ্ট ইন্ডিজ নিজেদের ১ম ইনিংসে ব্যাট করতে এসে স্পিন ভেলকিতে ৮৮ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে।
এর পরে কিছুটা আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে হেটমায়ার ও ডাউরিচের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ২৪৬ রানের সম্মানজনক স্কোর দাড় করায়। ফলে বাংলাদেশ ৭৮ রানের গুরুত্বপূর্ণ লিড পায়। ওয়েষ্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংস ধসিয়ে দেয়ার পথে বিশ্ব রেকর্ড গড়েন অভিষিক্ত নাইম হাসান।

নাইম হাসান সর্ব কনিষ্ঠ বোলার (১৭ বছর ৩৫৬ দিন) হিসেবে অভিষেকে পাঁচ উইকেট নিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েন।

আনইভেন বাউন্স আর টার্ণের কারনে ২য় দিনে ১৭ উইকেট পতনের ফলে অনেকটাই নিশ্চিত হয় ৩য় দিনে ফল দেখতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম টেষ্ট।

৭৮ রানে এগিয়ে থেকে শুরু করা নিজেদের ২য় ইনিংসে বাংলাদেশ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও শেষ পর্যন্ত মাহমুল্লাহ রিয়াদের ৩১ রানের উপর ভর করে ১২৫ রানে অল আউট হলে জয়ের জন্য ইন্ডিজ দের ২০৪ রানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়।

চতুর্থ ইনিংসে ২০৪ রান পাহাড়সম হয়ে দেখা দেয় ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের নিকট। শুরুতেই সাকিব আল হাসান এবং তাইজুল ইসলামের স্পিন তোপে ১১ রানে টপ অর্ডারের ৪ ব্যাটসম্যান আউট হলে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ।

এরপর একে একে টাইগার স্পিনারদের সামনে অসহায় আত্নসমর্পন করতে থাকেন বাকী ব্যাটসম্যানরা।
শেষের দিকে ওয়ারিকেন এবং হেটমায়ারের ব্যাটে কিছুটা প্রতিরোধ গড়লেও তা জয়ের পথে বাঁধা হয়ে দাড়াতে পারেনি বাংলাদেশের সামনে। শেষ পর্যন্ত ১৩৯ রানে অল আউট হলে ক্যারিবীয় দের বিপক্ষে ৩য় আর দেশের মাটিতে প্রথম জয় পায় লাল সবুজের প্রতিধিরা।

তাইজুল ইসলামের ৬ উইকেট শিকারের দিনে সাকিব আল হাসান ও মেহেদী মিরাজ ২ টি করে উইকেট শিকার করেন।

১ম ইনিংসে অসাধারণ শতক হাঁকানোর সুবাদে চট্টগ্রাম টেষ্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন মুমিনুল হক।

সাকিব আল হাসান এদিন অনন্য এক রেকর্ড গড়েন।

ক্রিকেট বিশ্লেষকদের মতে টেষ্ট ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার স্যার ইয়ান বোথামের জন্মদিনে তাকেই ছাড়িয়ে অনন্য এক রেকর্ড নিজের করে নিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোষ্টার বয় সাকিব আল হাসান।

একই সাথে ২০০ উইকেট এবং ৩০০০ রান সংগ্রহের ক্ষেত্রে সাকিব আল হাসান সবচেয়ে কম ৫৪ ম্যাচ খেলে ইয়ান বোথাম কে ছাড়িয়ে দ্রুততম ডাবলের এক অনন্য কীর্তি গড়েন।
এ রেকর্ড অর্জনের পথে তিনি পেছনে ফেলেছেন কপিল দেব ইমরান খান সহ ক্রিকেটের অনেক রথি -মহারথীকে।

এছাড়া সাকিব আল হাসান একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে ২০০ উইকেট শিকারের কীর্তিও নিজের করে নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here