বিশ্বকাপে ফিজের বোলিংয়ের দিকেই চেয়ে থাকবে বাংলাদেশ

0
20

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯। বিগত যেকোনো আসরের থেকে এবারের আসরে টাইগারদের উপর প্রত্যাশাটা অনেক বেশি সমর্থকদের। সেই প্রত্যাশা পূরণ করার দায়িত্ব নিয়ে যে ১৫ জন ক্রিকেটার যাচ্ছে লাল-সবুজের প্রতিনিধি হয়ে বিশ্বমঞ্চ মাতাতে তাদের নিয়ে স্পোর্টস নিউজ বাংলাদেশের ধারাবাহিক পনেরো প্রতিবেদনের প্রথম প্রতিবেদনে আজ থাকছে ফাস্ট বোলার মোস্তাফিজুর রহমানের কথা।

১৯৯৫ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরায় জন্ম নেয়া মোস্তাফিজ প্রথমে অনূর্ধ্ব -১৭ এবং পরে অনূর্ধ্ব -১৯ দলের হয়ে পারফর্ম করে নজরে আসেন। মূলত বোলিংয়ের বৈচিত্র্য থাকার ফলেই ২০১৫ সালে মাত্র ১৯ বছর বয়সে পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হাতেখড়ি হয় ফিজের।

তবে ২০১৫ তে ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে রাজসিক অভিষেকের পর রীতিমতো বাংলাদেশ ক্রিকেটের বিস্ময় বালকে পরিনত হয়ে যান কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। এর পর একের পর এক সিরিজে রীতিমতো প্রতিপক্ষের জন্য আতঙ্কের নাম হয়ে দাড়ায় এই বোলার।

তবে ২০১৬ তে আইপিএল শেষে কাউন্টি ক্রিকেট খেলার সময়ে কাঁধের ইনজুরিতে পড়ে নিজের স্বরুপ অবস্থা থেকে সরে আসতে হয় এই বোলারকে।
২০১৭ তে ঐভাবে নিজেকে মেলে ধরতে না পারলেও ২০১৮তে আবারো ফর্মে ফিরে দ্যা ফিজ। ২৯ উইকেট নিয়ে গতবছর হয়েছিলেন টাইগারদের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী।

বিশ্বকাপে কাপ্তান মাশরাফির বোলিং আক্রমণের সেরা অস্ত্র হিসেবে সবার উপরে রয়েছে মোস্তাফিজের নাম। তবে ইংলিশ কন্ডিশনে মোস্তাফিজের অতিত অভিজ্ঞতা আর সদ্য শেষ হওয়া ট্রাইনেশন সিরিজের প্রথম ম্যাচ ও ফাইনালে মোস্তাফিজের অতিরিক্ত খরুচে বোলিং কিছুটা হলেও দুশ্চিন্তার কারন হতে পারে টিম ম্যানেজমেন্টের।

যদিও ওয়ানডেতে পরিসংখ্যান মোস্তাফিজের পক্ষেই কথা বলে। এখন পর্যন্ত ৪৬ ওয়ানডে থেকে ৪.৮৮ ইকোনমিতে ৮৩ উইকেট পেয়েছেন মোস্তাফিজ। উইকউইকেট নেয়ার দিক থেকে বিশ্বকাপে অধিনায়ক মাশরাফির প্রধান হাতিয়ার হতে পারেন ফিজ।

তবে ইংল্যান্ডে খেলা ৪ ম্যাচের পরিসংখ্যান মোস্তাফিজের পক্ষে কথা বলেছেনা। ৪ ম্যাচ থেকে মোস্তাফিজ ৬.৪০ ইকোনমিতে উইকেট পেয়েছেন মাত্র ১টি। তাই সাথে এটাও মাথায় রাখতে হবে ইংলিশ ব্যাটিং উইকেট আর কন্ডিশনে মোস্তাফিজের সামনে থাকছে কঠিন চ্যালেঞ্জ। এই চাপ সামলে চ্যালেঞ্জ মোস্তাফিজ কতটা নিতে পারে সেটা যেমন দেখার বিষয় তেমনি মোস্তাফিজ তার কাজটুকু সফলভাবে করবে এটাই প্রত্যাশা বাংলাদেশ দল ও সমর্থকদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here