বাংলাদেশের কিশোরদের শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন

0
371
ফাইনাল সামনে রেখে অনুশীলনে ব্যস্ত বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ দলের কিশোররা। ছবি: সংগৃহীত

ফুটবলে বাংলাদেশ জাতীয় দল আলোর সন্ধানে ব্যস্ত। মাঝে মধ্যে আশার আলো দেখা গেলেও এখনো অন্ধকারে ফুটবল। তবে যুব ফুটবলাররা বাংলাদেশের ফুটবল আকাশ আলোকিত করে যাচ্ছেন একের পর এক টুর্নামেন্টে দারুণ পারফরম্যান্স করে। সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে শ্রেষ্ঠত্ব প্রমানের লড়াইয়ে পেছনে ফেলেছে ভারত, নেপাল এবং মালদ্বীপের মতো দলকে। এবার পাকিস্তানের পালা। শনিবার (কাল) টুর্নামেন্টের ফাইনালে নেপালের আনফা কমপ্লেক্সে পাকিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশের যুবারা।

প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের আলোচিত দল পাকিস্তান। দুই দলই ফাইনালে মুখোমুখি হবে দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে। বাংলাদেশ ২০১৫ সালে এবং পাকিস্তান ২০১১ সালে এই টুর্নামেন্ট জিতেছিল। চ্যাম্পিয়নশীপটি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সাত দেশ নিয়ে শুরু হয়েছিল ২০১১ সালে। শুরুতে ছিল নাম ছিল অনুর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশীপ। প্রথম আসরেই চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। এরপর ২০১৩ সালে ভারত, ২০১৫ সালে বাংলাদেশ এবং সর্বশেষ ২০১৭ সালের শিরোপাও জিতে নেয় ভারত। কাঠমুন্ডুতে এবার ৬ দল নিয়ে বসেছে পঞ্চম আসর।

ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জিততে চান অধিনায়ক মেহেদি হাসান। তিনি বলেন, ‘সেমিফাইনালে ভারতকে হারানো অনেক বড় ব্যাপার ছিল। ভারতকে হারাতে আমাদের সেরাটা খেলতে হয়েছে। কিন্তু ভারতকে হারানো পর্যন্তই থেমে থাকতে চাইনা। আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে চাই এবং গোটা দলের নজর এখন শিরোপার দিকেই।’ শিরোপা জিততে চান কোচ পারভেজ বাবুও। তিনি বলেন, ‘দলের ফুটবলাররা পরিকল্পিত ফুটবল খেলছে বলেই সাফল্য পেয়েছে। তারা দলের পরিকল্পনা মেনেই খেলছে। এখন আমাদের লক্ষ্য ফাইনাল জেতা।’

কাঠমুন্ডুর আনফা কমপ্লেক্সে ফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের যুবারা। বাংলাদেশের কিশোররা ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে সেমিফাইনালে শক্তিশালী ভারতকে হারায় টাইব্রেকারে। নির্ধারিত সময়ে ম্যাচটি ড্র ছিল ১-১ গোলে। ম্যাচের ১৭তম মিনিটের গোলে এগিয়েছিল ভারত। ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজার যখন অপেক্ষা, তখন ৯৩তম মিনিটে পেনাল্টিতে সমতা আনেন আশিকুর রহমান। এরপর টাইব্রেকারে ৪-২ গোলের জয় নিয়ে ফাইনালে স্থান করে নেয় বাংলাদেশের কিশোররা। গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে ৯-০ গোলে মালদ্বীপকে এবং ২-১ গোলে স্বাগতিক নেপালকে হারায় বাংলাদেশ। পাকিস্তান সেমিতে নেপালকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে। গ্রুপ পর্বে দলটি হারায় চির প্রতিদ্বন্ধী ভারতকে ২-১ গোলে এবং ভুটানকে ৪-০ গোলে।

বয়সভিত্তিক দলের ফুটবলাররা ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলছেন গত কয়েক বছর ধরে। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখার লড়াইয়ে নামছেন মেহেদিরা। এবার শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন তাদের সামনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here