ফেদেরারকে হারিয়ে ফাইনালে নাদাল

0
39

স্পোর্টস ডেস্কঃ দাপট চলছেই রাফায়েল নাদালের। ফ্রেঞ্চ ওপেনের আরেকটি শিরোপা জেতার মঞ্চও তৈরি করে ফেললেন স্পেনের এই টেনিস তারকা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রজার ফেদেররাকে উড়িয়ে তিনি নিশ্চিত করেছেন বছরের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডস্লামের ফাইনাল। শুক্রবার ফ্রেঞ্চ ওপেনের সেমিফাইনালে কিংবদন্তি রজার ফেদেরারকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-২ গেমে হারিয়ে প্রতিযোগিতাটির ১২তম শিরোপা জেতার পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেলেন স্প্যানিশ তারকা।

ফাইনালে তিনি মুখোমুখি হবেন নোভাক জোকোভিচ ও ডোমিনিক থিয়েমের অন্য সেমিফাইনাল জয়ীর বিপক্ষে। ২০১৫ সালের পর আবারও রোলাঁ গ্যাঁরোতে ফিরেছিলেন ফেদেরার। নিজেকে প্রস্তুত করে শিরোপা জেতার লক্ষ্যে ৩৭ বছর বয়সে ফ্রান্সের প্রতিযোগিতায় নামলেও ভাগ্য বদলালো না তার। নাদালের পাওয়ার টেনিসের কাছে হার মানলেন আরেকবার। ফ্রেঞ্চ ?ওপেন থেকে রেকর্ড ১১ বারের চ্যাম্পিয়ন নাদাল শিরোপার তালিকায় আরেকটি প্রাপ্তি যোগ করতে আর একটিমাত্র জয় দূরে।

এদিকে ফ্রেঞ্চ ওপেনের মহিলা এককের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছেন এ্যাশলে বার্টি ও মার্কেটা ভোন্ড্রোসোভা। ১৯ বছরের তরুণী ভোন্ড্রোসোভা সেমিফাইনালে ৭-৫ এবং ৭-৬ গেমে পরাজিত করেন গ্রেট ব্রিটেনের এক নম্বর খেলোয়াড় জোহানা কন্টাকে। আর অন্য সেমিফাইনালে অস্ট্রেলির্য়া এ্যাশলে বার্টি পরাজিত করেন এ্যামান্ডা এ্যানিসিমোভাকে। যুক্তরাষ্ট্রের এ্যামান্ডা এ্যানিসিমোভার কাছে প্রথম সেট ৭-৬ গেমে হারের পর টানা দুই সেট ৬-৩, ৬-৩ গেমে জিতে ফাইনালে ওঠেন অস্ট্রেলিয়ার বার্টি। সেমিফাইনালে এ্যামিনিসোভা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সিমোনা হালেপকে উড়িয়ে দারুণ চমক দেখিয়েছিলেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ১৭ বছর বয়সী এই তরুণীর পথচলা থামল সেমিফাইনালে। দারুণ কীর্তি গড়া হলো না জোহানা কন্টার। ১৯৭৭ সালের পর প্রথম মহিলা বৃটিশ খেলোয়াড় হিসেবে ফরাসী ওপেনের ফাইনালে খেলার হাতছানি ছিল তার সামনে। কিন্তু চেক রিপাবলিকের ভেন্ড্রোসোভার কাছে ৭-৫, ৭-৬ গেমে হেরে যান তিনি। অবাছাই ভোন্ড্রোসোভা ২০০৭ সালে সার্বিয়ান তারকা আনা ইভানোভিচের পর প্রথম টিনএজ খেলোয়াড় হিসেবে ফরাসী ওপেনের ফাইনালে উঠলেন।

সংগ্রীহিত – জনকন্ঠ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here