নির্বাচনী ইশতেহারে ক্রীড়াঙ্গন

0
404

স্পোর্টস ডেস্ক: পুরোনায় ক্ষমতায় এলে ক্রীড়াঙ্গনে ক্ষেত্রে উন্নয়নের ধারা আরো জোড়ালো করার প্রতিশ্রুতি দিলো আওয়ামী লীগ। নির্বাচন ইশতেহারে অতীতের মত ক্রিকেট, ফুটবল, হকি সহ অন্যান্য ইভেন্টে পাশে থাকার আসাস দিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ক্রীড়াঙ্গনকে রাজনীতি মুক্ত রাখার প্রতিশ্রুতি মিলেছে ঐক্যফ্রন্টের কাছ থেকে দিয়েছে ফুটবলে বাড়তি মনোযোগের আশাস। আর জেলায় জেলায় ক্রীড়া একাডেমি করতে চায় বিএনপি।

নানা প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে এখন পরিচিত এক নাম বাংলাদেশ। দেশে-বিদেশে নিজেদের অপ্রতিরোধ্য রুপ দেখিয়েছে ক্রিকেটাররা।

ক্রিকেটে এই উন্নতি নিজেদের গত দুই মেয়াদের সরকারের সেরা সাফল্য বলছে আওয়ামী লীগ। শুধু তাই নয় দক্ষিণ দেশীয় ফুটবলে বয়স ভিত্তিক সাফল্যকে নিজেদের অনুষঙ্গ বলছে দলটি। আর এই উন্নয়নের ধারা নির্বাচিত হলে অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

সাড়ে পঞ্চান্ন কোটি টাকা বেয়ে দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মিনি স্টোডিয়াম নির্মান, বিকেএসপির ক্রীড়া অবকাঠামোগত উন্নয়ন চলোমান প্রক্রিয়া। এবার ক্রিকেটের পর ফুটবল, হকির পারফরমেন্স আন্তর্জাতিক মানের অঙ্গিকার করছে দলটি।

এদিকে বিএনপি সরকার গঠন করলে প্রতিটি জেলায় প্রযুক্তিনির্ভর ক্রীড়া একাডেমি নির্মান ঘোষণা দিয়েছে। ক্রীড়া উন্নয়নে পাঁচ বছরে রোড ম্যাপ চূড়ান্ত করবে দলটি।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও জাতীয়পার্টির ইশতেহার প্রায়ই একই সুতে গাথা। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আছে ক্রীড়া উন্নয়নের পাঁচটি প্রতিশ্রুতি। যার মধ্যে গুরুত্ব পেয়েছে ক্রীড়াঙ্গনকে রাজনীতি মুক্ত করে পেশাদারিত্বের প্রচলন অঙ্গিকার। ক্রিকেটকে সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়া সাথে ফুটবলের পুরোনো মর্যাদা ফিরিয়ে আনতে কাজ করবে জোটটি।

বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে বাম গণতান্ত্রিক জোটও তাদের ইশতেহারে সাতটি প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলা পূর্ণউজ্জীবিত থেকে শুরু করে শহরের খেলার মাঠ ব্যবস্থা করা জেলা পর্যায়ে স্টোডিয়ামের মান উন্নয়ন, উপজেলা পর্যায়ে নতুন স্টোডিয়াম জিমনেশিয়াম তৈরি করার কথা উল্লেখ আছে ইশতেহারে। আন্তর্জাতিক গেমস ও প্রতিযোগিতায় পদক জয়ের লক্ষ্যে বিশেষ পরিকল্পনা নেয়ার কথা বলছে জোটটি।

তবে জাতীয় পার্টির ইশতেহারে আলাদা করে স্থান পায়নি ক্রীড়াখাত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here