নিজস্ব নিরাপত্তা দল নিয়ে পাকিস্তান যাবে অনুর্ধ্ব ২৩ ক্রিকেটাররা

0
142

স্পোর্টস ডেস্কঃ পাকিস্তানের করাচিতে ইমার্জিং এশিয়া কাপের খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নুরুল হাসান সোহানের নেতৃত্বে ক্রিকেটাররা ৩ ডিসেম্বর সোমবার পাকিস্তানে যাবেন। সপ্তাহেও বোমা হামলা হয়েছে করাচিতে। নিরাপত্তা নিয়ে ‘সতর্ক’ বিসিবি দলের সঙ্গে নিজস্ব নিরাপত্তা দলও পাঠাবে। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্টিত অনূর্ধ্ব-২৩ ইমার্জিং কাপে খেলার জন্য পাকিস্তানে দল পাঠাতে সম্মত হয়েছে বিসিবি।

মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে সন্ত্রাস কবলিত পাকিস্তানে দল পাঠানোর ব্যাখা দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন দলের সঙ্গে নিরাপত্তায় অভিজ্ঞদের নিয়ে একটি দলও পাঠানো হবে,সেখানকার নিরাপত্তা পরিস্থিতি তারা দেখভাল করবেন। অনূর্ধ্ব-২৩ দলের ম্যানেজার হিসেবে সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলটকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। কোচের দায়িত্বে আছেন চাম্পাকা রামানায়েকে।

এসিসির এই টুর্ণামেন্টটির দু’টি গ্রুপের খেলা হবে দুই দেশে। এশিয়ান ক্রিকেট কা্উন্সিলের উদ্যোগে আয়োজিত ইর্মাজিং এশিয়া কাপে এশিয়ার দেশগুলোর অনূর্ধ্ব-২৩ দল অংশ নেয়। গত বছর টুর্ণামেন্টে অনুষ্টিত হয় বাংলাদেশে। এবার পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কায় হবে। ভারতীয় দল পাকিস্তানে গিয়ে খেলতে রাজি না হওয়াতে ভেন্যু করা হয় শ্রীলঙ্কা। ভারতের দলটির এ গ্রুপের খেলা শ্রীলঙ্কায় হবে। বাংলাদেশের দলটির বি গ্রুপের খেলা হবে পাকিস্তানের করাচিতে। বি গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে পাকিস্তান, হংকং এবং আরব আমিরাতের বিপক্ষে। আগামি ৫ ডিসেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাকিস্তারের করাচিতে অনুষ্ঠিত হবে স্বাগতিকদের সঙ্গে হংকং, আরব আমিরাত এবং বাংলাদেশের ম্যাচগুলো।

পাকিস্তানে দল পাঠানোর ব্যাখা দিতে গিয়ে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এমার্জিং কাপে পাকিস্তানে দল পাঠানোর আসলে দুটি ব্যাপার আছে। একটা হলো এই আসর দুই গ্রুপে হবে। আমাদের প্রথম পর্বের খেলাটা পাকিস্তানে। আর আমরা যদি দ্বিতীয় পর্বে যাই, তাহলে শ্রীলঙ্কায় খেলা হবে। এখানে ভারতের সমস্যা আছে। এখন ভারত-বাংলাদেশ দুই দেশই যদি বলে যে সমস্যা আছে, তাহলে দুইটা গ্রুপ পর্বে আসর আয়োজনটাই কঠিন হয়ে যাবে। আবার শ্রীলঙ্কা ওদের দেশে খেলবে, এখন ওরাও তো চাইবে ঘরের মাঠে খেলতে।’

ইমার্জিং এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দল:: কাজী নুরুল হাসান সোহান (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (সহ-অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, মিজানুর রহমান, শফিউল ইসলাম, জাকির হাসান, সাঈফ হাসান, ইয়াসির আলি চৌধুরী, তানভির ইসলাম, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাঈম হাসান, শরিফুল ইসলাম, কাজী অনিক ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ এবং মোহর শেখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here