দুই বছর পর লিগে বায়ার্নকে হারাল ডর্টমুন্ড

0
366

দুইবার এগিয়ে গিয়েও জয়ের দেখা পেল না জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ। শনিবার মধ্য রাতে জার্মান ক্ল্যাসিকোতে বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কাছে ৩-২ গোলে হেরে গেছে ব্যভারিয়ানরা। ২০১৬ সালের নভেম্বরে সর্বশেষ বুন্দেসলিগায় বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে জয়ের দেখা পেয়েছিল ডর্টমুন্ড। সেবার সিগনাল ইদুনা পার্কে ১-০ গোলে জিতেছিল তারা।

টানা ছয়বার (মোট ২৮বার) বুন্দেসলিগা জয়ের পর বায়ার্ন মিউনিখের গতিপথ বুঝি বদলে গেল! এবার মৌসুমের শুরুটা ভাল করলেও তা ধরে রাখতে পারল না তারা। বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড শীর্ষ স্থানে মজবুত আসন গেড়েছিল আগেই। বায়ার্ন মিউনিখকে হারানোর পর সেই আসন আরও পাকাপোক্ত হল। ১১ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড। অন্যদিকে সমান ম্যাচে ২০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে তিনে অবস্থান করছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ।

বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ডর্টমুন্ডের জয়ের নায়ক রেয়াস। দুটি গোল করেছেন তিনি। ছবি: ইন্টারনেট

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। ডর্টমুন্ডের সাবেক ফুটবলার
পোলিশ তারকা রবার্ট লিওয়ান্দোভস্কি ম্যাচে গোলের খাতা খুলেন ২৬তম মিনিটে। গ্নাবরির কাছ থেকে রাইট উইং থেকে বল পেয়ে হেডে গোল করে বায়ার্নকে শুরুতেই এগিয়ে দেন পোলিশ এই স্ট্রাইকার। বিরতি থেকে ফিরে যেন স্বরূপে ফিরে ডর্টমুন্ড। ৪৮তম মিনিটে বায়ার্নের গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নিউয়ার ডি বক্সের ভেতর রেয়াসকে ফেলে দিলে রেফারি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন। স্পট কিক থেকে গোল করে ডর্টমুন্ডকে সমতায় ফেরান রেয়াস। এর ঠিক চার মিনিট পরেই ম্যাচে দ্বিতীয়বারের মত বায়ার্নকে এগিয়ে দেন লিওয়ান্দোভস্কি। এবার বলের যোগানদাতা কিমিখ। পিছিয়ে পড়েও যেন ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে বেশ আত্মপ্রত্যয়ী ছিল ডর্টমুন্ড। আক্রমণের পর আক্রমণ করে ৬৭তম মিনিটে ডর্টমুন্ডকে আবারও ম্যাচে ফেরান রেয়াস। মৌসুমে লিগে এটি তার ৮ম গোল। লড়াইটা যেন রেয়াস বনাম লিওয়ান্দোভস্কিই হয়ে দেখা দেয়। অবশ্য ম্যাচের জয়সূচক গোলটি করেন মৌসুমের শুরুতে বার্সেলোনা থেকে ডর্টমুন্ডে আসা স্প্যানিশ স্ট্রাইকার পাকো আলকাসের। ৭৪তম মিনিটে ভিটসেলের মাঝমাঠ থেকে বাড়ানো বলে নিউয়ারকে বোকা বানিয়ে দারুণ গোল করে ডর্টমুন্ডকে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে দেন এই গোল মেশিন। এই মৌসুমে মাত্র ২৬০ মিনিট খেলে ৮ গোল করেছেন এই স্ট্রাইকার।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে ডর্টমুন্ডের জালে লিওয়ান্দোভস্কি গোল করলেও লাইন্সম্যান অফসাইডের সিদ্ধান্ত দেন। ফলে ৩-২ ব্যবধানের হার নিয়ে বাড়ি ফিরতে হলো বায়ার্নকে। এই হারের ফলে বায়ার্ন কোচ নিকো কোভাকের উপর চাপ আরও বাড়ল।

এদিকে শনিবার জার্মান বুন্দেসলিগায় হফেনহেইম ২-১ গোলে অগসবার্গকে, মেইঞ্জ ৩-১ গোলে ফ্রেইবার্গকে, স্টটগার্ট ২-০ গোলে নুরেমবার্গকে এবং মঞ্চেনগ্লাডবাখ ৩-১ গোলে ওয়ের্ডার ব্রেমেনকে হারিয়েছে। লিগে দুই নম্বরে অবস্থান করছে বুরুসিয়া মঞ্চেনগ্লাডবাখ। তারা ১১ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here