জিততে দরকার ৮ উইকেট!

0
109

স্পোর্টস ডেস্কঃ ৮ বছর পরে রিয়াদের সেঞ্চুরির পর মিঠুনের প্রথম ফিফটি। জিম্বাবুয়েকে ম্যাচ জিততে রেকর্ড গড়েই টপকাতে হবে ৪৪৩ রান। দিন শেষে বাংলাদেশ তুলে নিয়েছে দুই উইকেট। শেষ দিনে জিততে জিম্বাবুয়েকে করতে হবে ৩৬৭ রান আর বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট।

বোলাররা শেষ দিনের কাজটা অবশ্য এগিয়ে রেখেছে শেষ বেলায় চারি আর মাসাকাদজার উইকেট তুলে। ২৫ রানে মাসাকাদজাকে তুলে নিয়েছেন মিরাজ আর ৪৩ করা চারিকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে আউট করেছেন তাইজুল।

দিনের শুরুতে অবশ্য জিম্বাবুয়েকে ফলোঅনে ফেলাইনি বাংলাদেশ। বোলারদের একটু বিশ্রাম দিতেই হতে পারে এমন সিদ্ধান্ত। বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিলো লিডের সাথে দ্রুত রান তুলে বড় একটা লক্ষ্য ছুড়ে দেওয়া জিম্বাবুয়ের সামনে।

টপ অর্ডারে লিটন ইমরুলের সামনে সুযোগ ছিলো চাপহীন ভাবে নিজেদেরকে ঝালাই করে নেওয়া,তবে তারা ব্যর্থ! উল্টো ২৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ। লিটন ইমরুল তো আউট হয়েছেন সাথে তাড়াহুড়া করতে গিয়ে দ্রুতই আউট হয়েছেন প্রথম ইনিংসে দারুণ খেলা মমিনুল মুশফিক।

তবে সেই ধাক্কা সামাল দেন মিঠুন ও অধিনায়ক রিয়াদ। দুজনের বড় জুটিতে বাংলাদেশ বড় লিড পেয়ে যায়।তাদের জুটি থেকে আসে ১১৮,টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটিতে মিঠুন ফিরে যান ৬৭ রানে। আরিফুল ৫ রানের বেশি করতে পারেননি। তবে মিরাজকে নিয়ে আট বছর পর টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শতক তুলে নেন রিয়াদ। ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যামিল্টন টেস্টে সবশেষ সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন। টেস্ট ক্রিকেটে আগমনের পরের বছরই পেয়েছিলেন সেঞ্চুরি। টেস্টে দ্বিতীয় সেঞ্চুরিটি পেতে মাহমুদউল্লাহর লেগে গেল ৮ বছর ৯ মাস! মিরাজ প্রথম ইনিংসের মতো সঙ্গ দিয়ে ২৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

জার্ভিস,ত্রিপানো দুজনেই দুটি করে উইকেট শিকার করেন। একটি করে নেন উইলিয়াম্স ও রাজা। শেষ দিনে জিম্বাবুয়ের কাজটা কঠিন হয়ে গেলো দুই উইকেট হারিয়ে। যদি মিরাকেল কিছু না হয় তবে এই টেস্ট জেতার পাল্লা ভারি বাংলাদেশর দিকে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here