কুড়িগ্রামের ক্ষুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয়ের চিকিৎসায় ২ লক্ষ টাকা প্রয়োজন!

0
81

 

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলাধীন খুলিয়াটারী গ্রামের বাসিন্দা সিলেট বিকেএসপি’র ছাত্র খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয়ের চিকিৎসায় ২ লক্ষ টাকা প্রয়োজন।

জানা যায়, কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলাধীন চাকিরপশার ইউনিয়নের খুলিয়াটারী গ্রামের মোহন চন্দ্র সরকারের পুত্র খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয়। সে বর্তমানে সিলেট বিকেএসপি’র ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। সে সিলেট বিকেএসপি’তে ফুটবল বিভাগে স্ট্রাইকার হিসেবে পড়ালেখা করছে। গত ৩ মাস পূর্বে সিলেট বিকেএসপি’তে নিয়মিত খেলায় অংশ নিতে গিয়ে নি-ইনজুরি (হাঁটু) লিগামেন্ট সমস্যায় ইনজুরির শিকার হয়। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রায় ২ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। তার পিতা মোহন চন্দ্র সরকার একজন সামান্য এনজিও মাঠকর্মী। যার পক্ষে কোনভাবেই সন্তানের উন্নত চিকিৎসার ব্যয়ভার গ্রহণ করা সম্ভব হচ্ছে না। গতকাল খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয় তার পিতাকে সাথে নিয়ে কুড়িগ্রাম জেলা স্টেডিয়াম মাঠে ফুটবলের প্রান্তিক চাষি জালাল হোসেন লাইজুর শরণাপন্ন হন। এ সময় স্পোর্টস নিউজ বাংলাদেশের জেলা প্রতিনিধির সামনে কান্নাজড়িত কন্ঠে খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয় তার চিকিৎসায় অসহায়ত্বের কথা সবার সামনে তুলে ধরেন। তার উন্নত চিকিৎসায় সমাজের বিত্তবানদের আর্থিক অনুদান কামনা করেছেন। তাকে সাহায্য করতে যে কেউ অনুদান পাঠাতে পারেন- মোহন চন্দ্র সরকার, বিকাশ নং- ০১৭১৮৮৯২৭০০ অথবা ব্যাংক হিসাব নম্বর- ৩২০১৫, অগ্রণী ব্যাংক লিঃ, চিলমারী শাখা, কুড়িগ্রাম। এছাড়াও খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয়ের সম্পর্কে ফুটবলের প্রান্তিক চাষি জালাল হোসেন লাইজু বলেন, কুড়িগ্রামের রাজারহাট এলাকার বাসিন্দা খুদে ফুটবলার গৌতম কুমার হৃদয়ের চিকিৎসায় জেলার বিত্তবানদের এগিয়ে আসা উচিত। একজন ফুটবলারের স্বপ্ন যেন কোন ভাবেই সামান্য কিছু টাকার অভাবে মৃত্যু না ঘটে তা আমাদেরকেই ভাবতে হবে। এজন্য স্থানীয় এমপি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সকলকে সাহায্যের হাত বাড়াতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় কুড়িগ্রামের ফুটবল সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here