আরামবাগকে গুড়িয়ে দিয়ে শিরোপার আরো কাছে বসুন্ধরা কিংস

0
177

স্পোর্টস ডেস্কঃ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের ২১ তম রাউন্ডের খেলায় জয় পেয়েছে বসুন্ধরা কিংস। আরামবাগ ক্রীড়া সংঘরকে ৩-০ গোলে পরাজিত করেছে নবাগত জায়ান্টরা। এতে শিরোপা জয়ের পথে আরো এগিয়ে গেল এখন পর্যন্ত লীগে অপরাজিত থাকা কিংস।

গতকাল ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরু হয়েও বৃষ্টিতে খেলা স্থগিত করতে বাধ্য হয় ম্যাচ কমিশনার ও রেফারিরা। পরবর্তীতে নেয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ আবার মাঠে গড়ায় খেলাটি। ঘরের মাঠে প্রথম থেকেই বসুন্ধরাকে চেপে ধরার চেষ্টা করে আরামবাগ কেএস। মাঠ কর্দমাক্ত থাকায় কোন দলই স্বাভাবিক ফুটবল খেলতে পারছিলো না। প্রথমার্ধে কয়েকবারই নিজের গতির ঝলক দেখান আরামবাগের উইংগার আরিফুর। ডি বক্সে ডুকে পরেও সতীর্থে ব্যর্থতায় তার বাড়ানো বল গোলের মুখ খুলতে পারেনি। প্রথমার্ধ গোল শূন্যভাবে শেষ করে দুদল।

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফেরে বসুন্ধরা কিংস। বল নিজেদের নিয়ন্ত্রনে রেখে আক্রমনে যায় তারা। ডি বক্সে আরানবাগের ডিফেন্ডার ইকবালের হ্যান্ডবলে ম্যাচের ৫৪ মিনিটে পেনাল্টি অর্জন করে কিংস। পেনাল্টি থেকে ঠান্ডা মাথায় গোল করে দলকে এগিয়ে দেন মার্কোস ভিনিসিয়াস। খেলার ৬৮ মিনিটের সময় বখতিয়ারের বাড়ানো ক্রস বক্সে ভিতরে দাড়িয়ে থাকা কলিন্ড্রেসের পায়ে গেলে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন তিনি। এর আট মিনিট পর আবারো কলিন্ডেস-বখতিয়ার জুটির অসাধারন গোল। ডান প্রান্ত থেকে বখতিয়ারের ক্রস কলিন্ড্রেসের কাছে গিয়ে পৌঁছালে তা তিন কাঠির নিচে পৌঁছে দেন এই কোস্টারিকান। এতে ৩-০ গোলের সহজ জয় নিশ্চিত হয় বসুন্ধরা কিংসের।

ম্যাচে কয়েকবার আরামবাগের খেলোয়াড়দের রেফারির সাথে তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। এতে দলের অধিনায়ক রকিকে হলুদ কার্ড দেখিয়ে সতর্ক করেন রেফারি। ম্যাচ শেষের পরও আরামবাগের খেলোয়াড়দের একই কাজ করতে দেখা যায়। সবচেয়ে আলোচিত বিষয়, এই ম্যাচেও আরামবাগের খেলোয়াড় তালিকায় ছিলেন না রবিউল হাসান। গুঞ্জন অনুযায়ী তিনি আগামী মৌসুমের জন্য বসুন্ধরা কিংসে নাম লিখিয়েছেন।

উক্ত খেলা শেষে ১৯ ম্যাচ খেলে ১৮ টি জয় নিয়ে ৫৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করে টেবিলের এক নম্বরে রয়েছে বসুন্ধরা কিংস । অন্যদিকে ২০ ম্যাচ খেলে মাত্র ৮ টি জয়ে ২৬ পয়েন্ট সংগ্রহ করে টেবিলের পাঁচে রয়েছে আরামবাগ কেএস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here